ব্যাংককে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন


২৪ মার্চ ২০২২, বৃহস্পতিবার, বাংলাদেশ দূতাবাস, ব্যাংককে আনুষ্ঠানিকভাবে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। ফলে এখন প্রবাসীরা ঘরে বসেই আবেদন করে সহজেই ই-পাসপোর্ট হাতে পাবেন। ১৫তম মিশন হিসেবে ব্যাংককে ই-পাসপোর্ট সেবা চালু করা হলো। যা পর্যায়ক্রমে অন্যান্য মিশনেও চালু হবে। দুটি মোবাইল এনরোলমেন্ট ইউনিট সংযুক্ত করায় কম্বোডিয়ায় অবস্থিত প্রবাসী নাগরিকগণ ই-পাসপোর্ট সুবিধা গ্রহণ করতে সক্ষম হবেন।
দূতালয় প্রাঙ্গনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব জনাব মোঃ মোকাব্বির হোসেন ও মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ আব্দুল হাই। এসময় দূতাবাসের মিনিস্টার কনস্যুলার জনাব আহমদ তারেক সুমীন, ই-পাসপোর্ট এবং স্বয়ংক্রিয় বর্ডার কন্ট্রোল ব্যবস্থাপনা প্রবর্তন প্রকল্পের অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক জনাব কর্নেল শাহরিয়ার কবির, ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, দূতাবাসে আগত সেবা প্রার্থী ছাড়াও দূতাবাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব জনাব মোঃ মোকাব্বির হোসেন পূর্বে প্রচলিত হাতে লেখা এবং মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের কিছু সীমাবদ্ধতা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, নতুন ই-পাসপোর্ট বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত হওয়ায় ই-পাসপোর্ট বাহকের ভ্রমণকে স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ করতে সহায়ক হবে। যার ফলে বহির্বিশ্বে এই পাসপোর্টের মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে।
অনুষ্ঠানে মান্যবর রাষ্ট্রদূত বলেন, থাইল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ই-পাসপোর্টের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী রাজনৈতিক নেতৃত্বের ফলশ্রæতিতে দিন দিন সবার ঘরে ডিজিটাল সুবিধা পৌঁছে যাচ্ছে। ঘরে বসেই ই-পাসপোর্ট এর আবেদন করা যাবে। সহজেই পাসপোর্ট সংগ্রহ করা সম্ভব হবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সচিব জনাব মোঃ মোকাব্বির হোসেন এবং মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ আব্দুল হাই কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকের হাতে ই-পাসপোর্ট এর এনরোলমেন্ট ¯িøপ হস্তান্তর করেন।
পরিশেষে মান্যবর রাষ্ট্রদূত উপস্থিত সুধীবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।